ঢাকা, বুধবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২৬ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বিয়ে রোধ করা গেলে থ্যালাসেমিয়া রোগ প্রতিরোধ সম্ভব

আরিফ সাওন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-০৬ ৮:০২:২১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-০৬ ৮:০২:২১ পিএম
Walton AC 10% Discount

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা বলেছেন, ‘থ্যালাসেমিয়া রোগের চিকিৎসা আছে, তবে তা ব্যয়বহুল। বিয়ের আগে রক্ত পরীক্ষা করে দুই বাহকের মধ্যে বিয়ে রোধ করা গেলে থ্যালাসেমিয়া রোগ প্রতিরোধ সম্ভব। এর জন্য সচেতনতাও বাড়ানো প্রয়োজন। আর দরকার এই রোগ প্রতিরোধে সরকারি উদ্যোগ।’

আগামী ৮ মে বিশ্ব থ্যালাসেমিয়া দিবস। প্রতিবছর বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশও থ্যালাসেমিয়া রোগীদের প্রতি শ্রদ্ধা, তাদের বাবা-মায়ের অক্লান্ত পরিশ্রম, অসীম ধৈর্য্যের প্রতি সম্মান প্রদর্শন, বিশ্বব্যাপী থ্যালাসেমিয়া রোগের বিস্তার প্রতিরোধ, রোগীদের সার্বিক অবস্থার উন্নতিকল্পে নানা ধরনের কর্মসূচির মাধ্যমে এই দিবসটি পালিত হয়। বাংলাদেশে থ্যালাসেমিয়া রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। এ রোগ প্রতিরোধ ও থ্যালাসেমিয়া রোগীদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করা এখন মূল লক্ষ্য।

বাংলাদেশ থ্যালাসেমিয়া সমিতি ও হাসপাতালের উদ্যোগে প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরেও বিশ্ব থ্যালাসেমিয়া দিবস উপলক্ষ্যে সপ্তাহব্যাপী ‘থ্যালাসেমিয়া সচেতনতা ও সেবা সপ্তাহ’ ঘোষণা করা হয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় রাজধানীর সিমুড সেমিনার রুমে বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজের প্রায় ৫০ জন চিকিৎসককে নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো ‘থ্যালাসেমিয়া ট্রিটমেন্ট অ্যান্ড বিয়ন্ড’ শীর্ষক সেমিনার। বাংলাদেশ থ্যালাসেমিয়া সমিতি হাসপাতাল ও নোভাটিস ফার্মাসিটিকেলস যৌথভাবে এই সেমিনারের আয়োজন করে।

সেমিনারের চেয়ারপার্সন হিসেবে বক্তব্যে গ্রিন লাইফ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের অধ্যক্ষ এম এ আজহার বলেন, ‘বিয়ের আগে রক্ত পরীক্ষা করে দুই বাহকের মধ্যে বিয়ে রোধ করা গেলে থ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধ সম্ভব। বাকি সব প্রতিরোধ ব্যবস্থা অনেক ব্যয়বহুল ও কঠিন। মাসে মাসে রোগীর জন্য প্রচুর রক্ত লাগে ও টাকা ব্যয় হয়।’
 


এ ছাড়া, প্রফেসর ডা. এম এ খান, বি এম টি ইউনিট, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল চিকিৎসকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন ও আধুনিক চিকিৎসা ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা করেন। সেমিনারের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডা. অখিল রঞ্জন বিশ্বাস ও ডা. মাফরুহা আক্তার। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন তথ্যপ্রতিমন্ত্রী সৈয়দ দিদার বখত। সঞ্চালন করেন ডা.এ কে এম ইকরামুল হোসেন স্বপন।

সেমিনারে থ্যালাসেমিয়া রোগের সার্বিক চিকিৎসা পদ্বতি উন্নতকরণ,রোগীর সেবা বৃদ্ধিকরণসহ নানা দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়। বাংলাদেশ থ্যালাসেমিয়া সমিতি ও হাসপাতালের এ আয়োজনে সহযোগিতা করে নোভার্টিস।

উল্লেখ্য, এবারের থ্যালাসেমিয়া দিবসের প্রতিপাদ্য ‘ইউনিভার্সাল একসেস টু কোয়ালিটি থ্যালাসেমিয়া হেলথ কেয়ার সার্ভিসেস : বিল্ডিং ব্রিজ উইথ অ্যান্ড ফর পেশেন্ট’।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/৬ মে ২০১৯/সাওন/সাইফুল

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge