ঢাকা, শনিবার, ১২ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
Risingbd
অমর একুশে
সর্বশেষ:

যে রেস্টুরেন্টে খাবার টেবিলে রাইজিংবিডি প্রদর্শন

রেজাউল করিম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০১-২১ ৬:৫২:১৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১৩ ১০:৫৭:৩৪ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম : বন্দরনগরী চট্টগ্রামে রেস্টুরেন্টে খাবারের টেবিলে প্রদর্শিত হচ্ছে  জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাইজিংবিডি ডটকম।

রেস্টুরেন্টে খেতে গিয়ে অর্ডার দিয়ে কাউকে বোরিং হয়ে অপেক্ষা করতে হবে না। যে টেবিলে বসবেন, সেই টেবিলটি ৫২ ইঞ্চির কম্পিউটার। টেবিলে স্পর্শ করে পড়ে নিতে পারছেন দেশ-বিদেশের তরতাজা খবর।

এই ব্যতিক্রমী ডিজিটাল আইডিয়া নিয়ে সদ্য চালু হয়েছে ‘হাইড আউট লাউঞ্জ’ রেস্টুরেন্ট। চট্টগ্রাম মহানগরীর দুই নম্বর গেটের বাদশা মিয়া পেট্রোল পাম্প সংলগ্ন ইয়াকুব ট্রেড সেন্টারের তৃতীয় তলায় রেস্টুরেন্টটি তরুণসহ সব বয়সী মানুষের কাছে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।



হাইড আউট লাউঞ্জের কর্ণধার চট্টগ্রামের তরুণ শিল্প উদ্যোক্তা সৈয়দ রুম্মান আহাম্মেদ জানান, পুরো দেশ শতভাগ ডিজিটালাইজড করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। সরকারের এমন উদ্যোগ এগিয়ে নিতে পারে আজকের তরুণেরা। তাই সদ্য চালু হওয়া রেস্টুরেন্টের খাবার টেবিলকে ডিজিটালাইজড করে অতিথিদের সামনে উপস্থাপন করেছেন। এই টেবিলে একজন অতিথি খেতে বসে টেবিলে ফিঙ্গার টাচ করে পড়তে পারবেন অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাইজিংবিডি। ওই টেবিলের ওপর প্লেট-গ্লাস রেখে খেতে পারবেন। শুধু ফিঙ্গার দিয়ে টাচ করে ব্রাউজিং করা যাবে।

রেস্টুরেন্টের ১৫টি টেবিলকে এই প্রক্রিয়ার মধ্যে আনা হবে। প্রাথমিক পর্যায়ে চার/পাঁচটি টেবিলে এটি চালু হয়েছে। একটি টেবিলে এটি চালু করতে ৪/৫ লাখ টাকা খরচ হয়। দ্রুত গতির ওয়াইফাই কানেক্টিভিটি-সম্পন্ন এসব টেবিলে আগামীতে ফেসবুক ব্রাউজিংসহ অন্যান্য সুযোগও সচল করা হবে।

সৈয়দ রুম্মান আহাম্মেদ জানান, হাইড আউট লাউঞ্জ শুধু রেস্টুরেন্ট নয়, এখানে রয়েছে চট্টগ্রাম শহরের প্রথম নাইন ডি মুভি জোন ও গেম জোন। অতিথিরা খাবার টেবিলে বসে যেমন খাবার খেতে এবং ডিজিটাল সংবাদপত্র পড়তে পারবেন, শিশু-কিশোররা গেম জোন ও নাইন ডি মুভি জোনে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি মুভি দেখতে ও একই সঙ্গে খেলতে পারবেন।



হাইড আউট লাউঞ্জের আর্কিটেকচারাল ডিজাইনার শহীদ চৌধুরী জানান, চট্টগ্রাম শহরে প্রথম স্থাপিত ডিজিটলাইজড রেস্টুরেন্ট হাইড আউট লাউঞ্জ। রেস্টুরেন্টের খাবার টেবিল ডিজিটাল। এখানে রয়েছে দেশের সবচেয়ে বড় ১১০ ইঞ্চি টেলিভিশন। পুরো রেস্টুরেন্ট ডিজাইন করা হয়েছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সংযোজন করে। এখানে শুধু খাওয়া-দাওয়া নয়, সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বিনোদনের সব আয়োজন সংযোজন করা হয়েছে।



রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/২১ জানুয়ারি ২০১৮/রেজাউল করিম/বকুল/রফিক

Walton
 
   
Marcel