ঢাকা, শুক্রবার, ৮ আষাঢ় ১৪২৬, ২১ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বোলারদের নৈপূণ্যে মোহামেডানের সান্ত্বনার জয়

আমিনুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০২-২৭ ৬:২৯:১৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০২-২৭ ৬:২৯:১৯ পিএম
Walton AC 10% Discount

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ওয়ালটন ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবের কাছে হার মেনেছিল মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। ওই ম্যাচে হেরে সেমিফাইনালে যাওয়ার পথে পিছিয়ে যায় তারা।

আজ বুধবার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জকে হারিয়েছে মোহামেডান। তবে এই জয়ে কোনো লাভ হয়নি মতিঝিলের ক্লাবটির। বলা যায় বোলারদের নৈপূণ্যে সান্ত্বনার জয় পেয়েছে সাদা-কালো শিবির। কারণ, দুই ম্যাচের দুটিতেই জিতে ‘সি’ গ্রুপ থেকে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে শাইনপুকুর।

দুই ম্যাচের ১টিতে জিতে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে থেকে প্রথমবারের মতো আয়োজিত টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে মোহামেডান। রূপগঞ্জ দুই ম্যাচের একটিতেও জয় পায়নি।

বুধবার টস জিতে মোহামেডান প্রথমে ব্যাট করতে নামে। ৩০ রান তুলতেই তারা হারিয়ে বসে চার-চারটি উইকেট। এরপর বৃষ্টি এসে হানা দেয়। বৃষ্টির কারণে কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ থাকে। এরপর খেলা আবার শুরু হলে ৫৪ রানেই ৫ উইকেট হারায় মোহামেডান। ৬৫ রানের মাথায় ৬ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়া মোহামেডানকে লড়াই করার মতো পুঁজি এনে দেন নাদিফ চৌধুরী, সোহাগ গাজী, আলাউদ্দিন বাবু ও অভিষেক মিত্র।

এই চারজন ব্যাটসম্যানই দুই অঙ্কের কোটা ছুঁতে পারেন। তাদের মধ্যে নাফিদ ৩৪ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় করেন অপরাজিত ৪১ রান। আলাউদ্দিন ২৩ বলে ২ চার ও ২ ছক্কায় করেন ৩০ রান। অভিষেক মিত্র ১৩ বলে ১ চার ও ২ ছক্কায় ২২ ও সোহাগ গাজী ১৮ বলে ১ চার ও ১ ছক্কায় করেন ২১ রান। তাতে ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪৩ রানের সংগ্রহ পায় মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।

বল হাতে রূপগঞ্জের মোহাম্মদ শহীদ ৩টি উইকেট নেন। ২টি উইকেট নেন মিজানুর রহমান।

১৪৪ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে রূপগঞ্জ মোহামেডানের বোলিং তোপের মুখে পড়ে। মাত্র ৯১ রানেই ৭ উইকেট হারিয়ে বসে নারায়ণগঞ্জের দলটি। সেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি তারা। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১১৩ রান করতে সমর্থ হয় রূপগঞ্জ। ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ২৮ রান করেন অধিনায়ক নাঈমইসলাম। ১৮ রান করেন আজমির আহমেদ। এ ছাড়া শাহরিয়ার নাফীস ১৫, মুক্তার আলী ১০ ও আসিফ হাসান ১৪ রান করেন।

মোহামেডান যে ছয়জন বোলার ব্যবহার করেছে তার মধ্যে পাঁচজনই উইকেট পেয়েছেন। সাকলাইন সজীব, নিহাদুজ্জামান ও শাহাদাত হোসেন প্রত্যেক ২টি করে উইকেট নিয়েছেন। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন সোহাগ গাজী ও আলাউদ্দিন বাবু।

ব্যাট হাতে ৩০ রান ও বল হাতে ৩ ওভারে ১৬ রান দিয়ে ১ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন মোহামেডানের আলাউদ্দিন বাবু।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/আমিনুল

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge